Discy Latest Questions

  1. শেষ খেয়া (Shesh Kheya) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কাব্যগ্রন্থঃ খেয়া দিনের শেষে ঘুমের দেশে ঘোমটা-পরা ওই ছায়া ভুলালো রে ভুলালো মোর প্রাণ। ও পারেতে সোনার কূলে আঁধারমূলে কোন্‌ মায়া গেয়ে গেল কাজ-ভাঙানো গান। নামিয়ে মুখ চুকিয়ে সুখ যাবার মুখে যায় যারা ফেরার পথে ফিরেও নাহি চায়, তাদের পানে ভাঁটার টানে যাব রে আজ ঘরছাড়াRead more

    শেষ খেয়া (Shesh Kheya)

    রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
    কাব্যগ্রন্থঃ খেয়া

    দিনের শেষে ঘুমের দেশে ঘোমটা-পরা ওই ছায়া
    ভুলালো রে ভুলালো মোর প্রাণ।
    ও পারেতে সোনার কূলে আঁধারমূলে কোন্‌ মায়া
    গেয়ে গেল কাজ-ভাঙানো গান।
    নামিয়ে মুখ চুকিয়ে সুখ যাবার মুখে যায় যারা
    ফেরার পথে ফিরেও নাহি চায়,
    তাদের পানে ভাঁটার টানে যাব রে আজ ঘরছাড়া
    সন্ধ্যা আসে দিন যে চলে যায়।
    ওরে আয়
    আমায় নিয়ে যাবি কে রে
    দিনশেষের শেষ খেয়ায়।

    সাঁজের বেলা ভাঁটার স্রোতে ও পার হতে একটানা
    একটি-দুটি যায় যে তরী ভেসে।
    কেমন করে চিনব ওরে ওদের মাঝে কোন্‌খানা
    আমার ঘাটে ছিল আমার দেশে।
    অস্তাচলে তীরের তলে ঘন গাছের কোল ঘেঁষে
    ছায়ায় যেন ছায়ার মতো যায়,
    ডাকলে আমি ক্ষণেক থামি হেথায় পাড়ি ধরবে সে
    এমন নেয়ে আছে রে কোন্‌ নায়।
    ওরে আয়
    আমায় নিয়ে যাবি কে রে
    দিনশেষের শেষ খেয়ায়।

    ঘরেই যারা যাবার তারা কখন গেছে ঘরপানে,
    পারে যারা যাবার গেছে পারে;
    ঘরেও নহে, পারেও নহে, যে জন আছে মাঝখানে
    সন্ধ্যাবেলা কে ডেকে নেয় তারে।
    ফুলের বার নাইকো আর, ফসল যার ফলল না
    চোখের জল ফেলতে হাসি পায়–
    দিনের আলো যার ফুরালো, সাঁজের আলো জ্বলল না,
    সেই বসেছে ঘাটের কিনারায়।
    ওরে আয়
    আমায় নিয়ে যাবি কে রে
    বেলাশেষের শেষ খেয়ায়।

     

    Diner Seshe Ghumer Deshe Lyrics:

    Diner seshe ghumer deshe ghumta-pora oi chaya,
    Bhulalo re, bhulalo mor pran !
    O parete sonar kule, adhar mule kon maya,
    Geye gelo kaj-bhangano gaan.
    Namiye mukh, chukiye sukh, jabar mukhe jay jara
    Ferar pothe fireyo nahi chay,
    Tader pane, bhatar tane, jabo re aj ghorchara –
    Sondha aashe, din je chole jay.
    Orey ay !
    Amay niye jabi ke re
    Dino sesher shesh kheyay.
    Sajher bela bhatar srute o par hote ektana
    Ekti-duti jaay je tori bhese.
    Kemon kore chinbo ore oder majhe konkhana,
    Amar Ghate chhilo amar deshe.
    Ostachole tirer tole, ghano gacher kon gheshe,
    Chaya jeno chayar moto jay.
    Dakle ami khonek thami, jethay pari dhorbe se.
    Emon neye kache re kon nay ?
    Orey ay !
    Amay niye jabi ke re
    Dino sesher shesh kheyay.

    See less
    • 0
  1. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নাটকের তালিকা: This is the list of Rabindranath Tagore Drama from A to Z 1. রুদ্রচণ্ড - Rudrachanda (১৮৮১) 2. প্রকৃতির প্রতিশোধ - Prakritir Pratishodh (১৮৮৪) 3. নলিনী - Nalini (১৮৮৪) 4. রাজা ও রাণী - Raja o Rani (১৮৮৯) 5. তপতী - Tapashi (১৯২৯) 6. বিসর্জন - Bisharjan (১৮৯০) 7. মালRead more

    রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নাটকের তালিকা:

    This is the list of Rabindranath Tagore Drama from A to Z

    1. রুদ্রচণ্ড – Rudrachanda (১৮৮১)

    2. প্রকৃতির প্রতিশোধ – Prakritir Pratishodh (১৮৮৪)

    3. নলিনী – Nalini (১৮৮৪)

    4. রাজা ও রাণী – Raja o Rani (১৮৮৯)

    5. তপতী – Tapashi (১৯২৯)

    6. বিসর্জন – Bisharjan (১৮৯০)

    7. মালিনী – Malini (১৮৯৬)

    8. লক্ষ্মীর পরীক্ষা – Laxmir Parkkha (১৮৯৯)

    9  শারদোৎসব – Sharoduthsob (১৯০৮)

    10. মুকুট – Mukut (১৯০৮)

    11. প্রায়শ্চিত্ত – Prayashchitta (১৯০৯)

    12. রাজা – Raja (১৯১০)

    13. ডাকঘর – Daakghar (১৯১২)

    14. অচলায়তন – Achalayatan (১৯১২)

    15. ফাল্গুনী – Falguni (১৯১৬)

    16. গুরু – Guru (১৯১৮)

    17. অরূপরতন – Arupartan (১৯২০)

    18. ঋণশোধ – Rinshudh (১৯২১)

    19. মুক্তধারা – Muktadhara (১৯২২)

    20. গৃহপ্রবেশ – Grihoprobesh (১৯২৫)

    21. চিরকুমার সভা – Chirakumar shova (১৯২৬)

    22. শোধবোধ – Shodhbodh (১৯২৬)

    23. নটীর পূজা – Natir Puja (১৯২৬)

    24. রক্তকরবী – Raktakarabi (১৯২৬)

    25. পরিত্রাণ – Paritran (১৯২৯)

    26. কালের যাত্রা – Kaler Jatra (১৯৩২)

    27. চণ্ডালিকা – Chandalika (১৯৩৩)

    28. তাসের দেশ – Tasher Desh (১৯৩৩)

    29. বাঁশরী – Bashari (১৯৩৩)

     

     

    See less
    • 0
  1. গল্পগুচ্ছ কাব্যটি কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের একটি শ্রেষ্ঠ ছোটগল্পের সংকলন। এই সংকলনে যে গল্পগুলি রয়েছে তার বেশিরভাগ গল্প তিনি ১২৯৮ থেকে ১৩১০ বঙ্গাব্দের মধ্যে লিখেছেন। সংস্করণটিতে মোট ৯১টি গল্প রয়েছে। গল্পগুলির তালিকা নিম্নরুপঃ (যদি গল্পগুচ্ছ কাব্যের PDF Download করতে চান তাইলে এই লিংকে পাবেন DownlRead more

    গল্পগুচ্ছ কাব্যটি কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের একটি শ্রেষ্ঠ ছোটগল্পের সংকলন। এই সংকলনে যে গল্পগুলি রয়েছে তার বেশিরভাগ গল্প তিনি ১২৯৮ থেকে ১৩১০ বঙ্গাব্দের মধ্যে লিখেছেন। সংস্করণটিতে মোট ৯১টি গল্প রয়েছে। গল্পগুলির তালিকা নিম্নরুপঃ

    (যদি গল্পগুচ্ছ কাব্যের PDF Download করতে চান তাইলে এই লিংকে পাবেন Download)

    ১. ঘাটের কথা
    ২. রাজপথের কথা
    ৩. মুকুট
    ৪. দেনাপাওনা
    ৫. পােস্টমাস্টার
    ৬. গিন্নি
    ৭. রামকানাইয়ের নির্বুদ্ধিতা
    ৮. ব্যবধান
    ৯. তারাপ্রসন্নের কীর্তি
    ১০. খােকাবাবুর প্রত্যাবর্তন
    ১১. সম্পত্তি-সমর্পণ
    ১২. দালিয়া
    ১৩. কঙ্কাল
    ১৪. মুক্তির উপায়
    ১৫. ত্যাগ
    ১৬. একরাত্রি
    ১৭. একটা আষাঢ়ে গল্প
    ১৮. জীবিত ও মৃত
    ১৯. স্বর্ণমৃগ
    ২০. রীতিমত নভেল
    ২১. জয়পরাজয়
    ২২. কাবুলিওয়ালা
    ২৩. ছুটি
    ২৪. সুভা
    ২৫. মহামায়া
    ২৬. দানপ্রতিদান
    ২৭. সম্পাদক
    ২৮. মধ্যবর্তিনী
    ২৯. অসম্ভব কথা
    ৩০. শাস্তি
    ৩১. একটি ক্ষুদ্র পুরাতন গল্প
    ৩২. সমাপ্তি
    ৩৩. সমস্যাপূরণ
    ৩৪. খাতা
    ৩৫. অনধিকার প্রবেশ
    ৩৬. মেঘ ও রৌদ্র
    ৩৭. প্রায়শ্চিত্ত
    ৩৮. বিচারক
    ৩৯. নিশীথে
    ৪০. আপদ
    ৪১. দিদি
    ৪২. মানভঞ্জন
    ৪৩. ঠাকুরদা
    ৪৪. প্রতিহিংসা
    ৪৫. ক্ষুধিত পাষাণ।
    ৪৬. অতিথি
    ৪৭. ইচ্ছাপূরণ
    ৪৮. দুরাশা
    ৪৯. পুত্রযজ্ঞ
    ৫০. ডিটেকটিভ
    ৫১. অধ্যাপক
    ৫২. রাজটিকা
    ৫৩. মণিহারা
    ৫৪. দৃষ্টিদান
    ৫৫. সদর ও অন্দর
    ৫৬. উদ্ধার
    ৫৭. দুর্বুদ্ধি
    ৫৮. ফেল
    ৫৯. শুভদৃষ্টি
    ৬০. যজ্ঞেশ্বরের যজ্ঞ
    ৬১. উলুখড়ের বিপদ
    ৬২. প্রতিবেশিনী
    ৬৩. নষ্টনীড়
    ৬৪. দর্পহরণ
    ৬৫. মাল্যদান
    ৬৬. কর্মফল
    ৬৭. গুপ্তধন
    ৬৮. মাস্টারমশায়
    ৬৯. রাসমণির ছেলে
    ৭০. পণরক্ষা
    ৭১. হালদারগােষ্ঠী
    ৭২. হৈমন্তী
    ৭৩. বােষ্টমী
    ৭৪. স্ত্রীর পত্র
    ৭৫. ভাইফোঁটা
    ৭৬. শেষের রাত্রি
    ৭৭. অপরিচিতা
    ৭৮, তপস্বিনী
    ৭৯. পয়লা নম্বর
    ৮০. পাত্র ও পাত্রী
    ৮১. নামঞ্জুর গল্প
    ৮২. সংস্কার
    ৮৩. বলাই
    ৮৪. চিত্রকর
    ৮৫. চোরাই ধন
    ৮৬. বদনাম
    ৮৭. প্রগতিসংহার
    ৮৮. শেষ পুরস্কার
    ৮৯. মুসলমানীর গল্প
    ৯০. ভিখারিনী
    ৯১. করুণা

    See less
    • 0
  1. জলবাহিত রােগগুলিকে চারভাগে ভাগ করা যেতে পারে: i. জল থেকে সৃষ্ট রােগ: ডায়রিয়া, আমাশা, Gastroenteritis, কলেরা, টাইফয়েড, হেপাটাইটিস এ এবং ই, জিয়ার্ডিয়াসিস, পােলিও ইত্যাদি রােগ হতে পারে যদি কোন ব্যাক্তি এই সমস্ত রােগের জীবাণু সংক্রমিত জল পান করেন। ii. জল-ধৌত রােগ: চামড়ার বিষক্রিয়া, পাঁচড়া এবং চাRead more

    জলবাহিত রােগগুলিকে চারভাগে ভাগ করা যেতে পারে:

    i. জল থেকে সৃষ্ট রােগ: ডায়রিয়া, আমাশা, Gastroenteritis, কলেরা, টাইফয়েড, হেপাটাইটিস এ এবং ই, জিয়ার্ডিয়াসিস, পােলিও ইত্যাদি রােগ হতে পারে যদি কোন ব্যাক্তি এই সমস্ত রােগের জীবাণু সংক্রমিত জল পান করেন।

    ii. জল-ধৌত রােগ: চামড়ার বিষক্রিয়া, পাঁচড়া এবং চামড়ায় ছত্রাক সংক্রমণ, চোখের সংক্রামক ব্যাধি যেমন ট্রকোমা সংক্রমণের মত রােগ জলের অপর্যাপ্ত ব্যবহারের দ্বারা সৃষ্ট। যারা নিয়মিত স্নান করে না, চুল ধােয় না, নিয়মিত কাপড় কাচে না, কাপড় জামা কাচার জন্য দূষিত জল ব্যবহার করে, তারা এই ধরণের রােগে আক্রান্ত হতে পারে।

    iii. জল ভিত্তিক রােগ: গিনি কীট, যা ভারত থেকে নির্মূল হয়েছে, যখন একজন ব্যক্তি কোনও জল পান করেন যার মধ্যে এমন প্যাথােজেন রয়েছে যা জলজ পরিবেশে জীবনচক্র গড়ে তােলে, তার প্রভাবেও রােগ হতে পারে।

    iv. জল সংক্রান্ত রােগ: জমা জলে মশা জন্ম নেয়, এবং এই মশা কামড়ালে ম্যালেরিয়া, ডেঙ্গু জ্বর এবং ফাইলেরিয়ার মতাে রােগ হতে পারে ।

     

    See less
    • 0
  1. দূষিত জল পানের প্রভাব:  - ব্যাকটেরিয়া সংক্রমিত দূষিত জল পান করলে ডায়রিয়া, আমাশয়, পেটের সমস্যা, কলেরা, টাইফয়েড, জ্বর, জন্ডিস, পােলিও হতে পারে। সাধারণ গ্রামবাসীদের মধ্যে এই ধরণের রােগের প্রাদুর্ভাব যথেষ্ট বেশি দেখা যায়। - ভারতে আনুমানিক ৪ লক্ষ্য ছােট শিশু প্রতি বছর মারা যায় ডায়রিয়ার কারণে ।

    দূষিত জল পানের প্রভাব: 

    – ব্যাকটেরিয়া সংক্রমিত দূষিত জল পান করলে ডায়রিয়া, আমাশয়, পেটের সমস্যা, কলেরা, টাইফয়েড, জ্বর, জন্ডিস, পােলিও হতে পারে। সাধারণ গ্রামবাসীদের মধ্যে এই ধরণের রােগের প্রাদুর্ভাব যথেষ্ট বেশি দেখা যায়।

    – ভারতে আনুমানিক ৪ লক্ষ্য ছােট শিশু প্রতি বছর মারা যায় ডায়রিয়ার কারণে ।

    See less
    • 0
  1. সেই তুমি (Sei Tumi) গায়কঃ আইয়ুব বাচ্চু সেই তুমি কেন এত অচেনা হলে সেই আমি কেন তোমাকে দুঃখ দিলেম কেমন করে এত অচেনা হলে তুমি কিভাবে এত বদলে গেছি এই আমি বুকেরই সব কষ্ট দুহাতে সরিয়ে চল বদলে যাই তুমি কেন বোঝনা তোমাকে ছাড়া আমি অসহায় আমার সবটুকু ভালোবাসা তোমায় ঘিরে আমার অপরাধ ছিল যতটুকু তোমার কাছে তুমি.. ক্Read more

    সেই তুমি (Sei Tumi)

    গায়কঃ আইয়ুব বাচ্চু

    সেই তুমি কেন এত অচেনা হলে
    সেই আমি কেন তোমাকে দুঃখ দিলেম
    কেমন করে এত অচেনা হলে তুমি
    কিভাবে এত বদলে গেছি এই আমি
    বুকেরই সব কষ্ট দুহাতে সরিয়ে
    চল বদলে যাই
    তুমি কেন বোঝনা
    তোমাকে ছাড়া আমি অসহায়
    আমার সবটুকু ভালোবাসা তোমায় ঘিরে
    আমার অপরাধ ছিল যতটুকু তোমার কাছে
    তুমি.. ক্ষমা করে দিও আমায়..

    কত রাত আমি কেদেছি
    বুকের গভীরে কষ্ট নিয়ে
    শূন্যতায় ডুবে গেছি আমি
    আমাকে তুমি ফিরিয়ে নাও
    তুমি কেন বোঝনা
    তোমাকে ছাড়া আমি অসহায়
    আমার সবটুকু ভালোবাসা তোমায় ঘিরে
    আমার অপরাধ ছিল যতটুকু তোমার কাছে
    তুমি ক্ষমা করে দিও আমায়

    যতবার ভেবেছি ভুলে যাবো
    তারও বেশি মনে পড়ে যায়
    ফেলে আশা সেই সব দিনগুলো
    ভুলে যেতে আমি পারি না
    তুমি কেন বোঝনা
    তোমাকে ছাড়া আমি অসহায়
    আমার সবটুকু ভালোবাসা তোমায় ঘিরে
    আমার অপরাধ ছিল যতটুকু তোমার কাছে
    তুমি ক্ষমা করে দিও আমায়

    See less
    • 1
  1. বঙ্গভূমির প্রতি - মাইকেল মধুসূদন দত্ত রেখো মা দাসেরে মনে, এ মিনতি করি পদে সাধিতে মনের সাধ, ঘটে যদি পরমাদ, মধুহীন করো না গো তব মনঃকোকনদে। প্রবাসে দৈবের বশে, জীব-তারা যদি খসে এ দেহ-আকাশ হতে, – খেদ নাহি তাহে। জন্মিলে মরিতে হবে, অমর কে কোথা কবে, চিরস্থির কবে নীর, হায় রে, জীবন-নদে? কিন্তু যদি রাখ মনে, নRead more

    বঙ্গভূমির প্রতি

    – মাইকেল মধুসূদন দত্ত

    রেখো মা দাসেরে মনে, এ মিনতি করি পদে
    সাধিতে মনের সাধ,
    ঘটে যদি পরমাদ,
    মধুহীন করো না গো তব মনঃকোকনদে।
    প্রবাসে দৈবের বশে,
    জীব-তারা যদি খসে
    এ দেহ-আকাশ হতে, – খেদ নাহি তাহে।
    জন্মিলে মরিতে হবে,
    অমর কে কোথা কবে,
    চিরস্থির কবে নীর, হায় রে, জীবন-নদে?
    কিন্তু যদি রাখ মনে,
    নাহি, মা, ডরি শমনে;
    মক্ষিকাও গলে না গো, পড়িলে অমৃত-হ্রদে!
    সেই ধন্য নরকুলে,
    লোকে যারে নাহি ভুলে,
    মনের মন্দিরে সদা সেবে সর্ব্বজন;
    কিন্তু কোন্ গুণ আছে,
    যাচিব যে তব কাছে,
    হেন অমরতা আমি, কহ, গো, শ্যামা জন্মদে!
    তবে যদি দয়া কর,
    ভুল দোষ, গুণ ধর,
    অমর করিয়া বর দেহ দাসে, সুবরদে! –
    ফুটি যেন স্মৃতি-জলে,
    মানসে, মা, যথা ফলে
    মধুময় তামরস কি বসন্ত, কি শরদে!

    Bangabhumir Prati poem in Bengali lyrics:

    – Michael Madhusudan Dutt

     

    “My native Land, Good Night!” – Byron

    Rekho Maa dashere mone, E minoti kori pode
    Sadhite moner sadh
    Ghote jodi poromaad
    Modhuhin koro na go tobo monokokonde
    Probashe doiber boshe,
    Jib tara jodi khoshe
    E deho akash hote- Khed nahi tate
    Jonmile mrite hobe
    Amar ke kutha kobe?
    Chirostir kobe neer, hay re, Jibon node?
    Kintu jodi rakho mone,
    Nahi, Maa, Dori shomone
    Mokkhikao gole na go, porile amrit hrode
    Shei dhonno narakule
    Loke jare nahi bhule,
    Moner mondire shoda shebe sorbojon
    Kintu kon goon aache,
    Jachibo je taba kache
    Heno amarota ami, koho, go, shayama jonmode
    Tobe jodi doya koro,
    Bhul dosh, gun dhoro,
    Amar koriya bor deho dashe, shubarde!
    Futi jeno smriti jole
    Manoshe, Maa, jotha fole
    Madhumoy tamrosh ki bosonto, ki shorode!

    See less
    • 0